Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৩ এপ্রিল, ২০১৮ ২২:২২ অনলাইন ভার্সন
পহেলা বৈশাখ উদযাপনে প্রস্তুত জবি
জবি প্রতিনিধি
পহেলা বৈশাখ উদযাপনে প্রস্তুত জবি

পহেলা বৈশাখ উদযাপনের সকল ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। প্রতিবছরের মতো এবারও একটি থিম ঘিরে সাজানো হয়েছে জবির বৈশাখী সব আয়োজন। এবারের বৈশাখে জবির থিম হলো ‘জাতীয় ফল কাঁঠাল’।
এ থিমকে লক্ষ্য রেখেই বিশাল আকারের প্রতিকী কাঁঠাল দিয়ে সাজানো হয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শোভাযাত্রার কার্যক্রম। পাশাপাশি থাকবে শেয়াল, কাঠবিড়ালী ও দেশীয় বিভিন্ন ফল-ফলাদির প্রতিকৃতি। শোভাযাত্রাটি সকাল ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ থেকে শুরু হয়ে পুরানো ঢাকা বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করবে।
মঙ্গল শোভাযাত্রায় প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এম পি। অনুষ্ঠানসমূহে সভাপতিত্ব করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড.মীজানুর রহমান। পুরানো ঢাকার ঐতিহ্য ধরে রাখতে ব্যবসায়ী সংগঠন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসমূহ এতে অংশগ্রহণ করবে।
মঙ্গল শোভাযাত্রা শেষে সামাজিক বিজ্ঞান ভবন চত্বরে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে নৃত্য, ও সংগীত, কমলা রাণীর সাগর দিঘীর পালাগান অবলম্বনে কিচ্ছাপালা। এছাড়াও পোগোজ ল্যাবরেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ, আই ই আর প্রাঙ্গণে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বৈশাখী মেলার আয়োজন করা হবে। মেলায় মিষ্টান্ন ও দধি, দেশীয় ফলসহ বিভিন্ন খাবারের স্টল, মাটির তৈরি তৈজসপত্র ও খেলনার স্টল স্থান পাবে। মেলায় ঐতিহ্যবাহী নাগর দোলা, চকড়িসহ শিশুদের বিনোদনের নানা উপকরণ মেলায় স্থান পাবে।
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড.মীজানুর রহমান বলেন, বণ্টনের বিষয়টিকে গুরুত্ববহ করে তুলতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বৈশাখের মঙ্গল শোভাযাত্রার এবারের মূল থিম হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছে আমাদের জাতীয় ফল কাঁঠাল কে। কাঁঠাল পৃথিবীর বৃহত্তম ফল। কাঁঠাল অন্যকে ভাগ না দিয়ে খাওয়া যায় না। লুকিয়ে একা একা খাওয়ার ও সুযোগ নেই, কাঁঠালের সুমিষ্ট গন্ধ জানান দিবে কোথায় কাঁঠাল খাওয়া হচ্ছে। কাঁঠালের অবশিষ্টাংশ ছেড়ে দিতে হবে পশু পাখিকে খাওয়ার জন্য। জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে সবাইকে উদ্বুদ্ধ করতে শোভাযাত্রায় কাঁঠালের পিছনে সঙ্গী হবে কাঠবিড়ালী ও শিয়াল।

বিডি-প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow