Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১২ জুলাই, ২০১৮ ২২:২০ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১২ জুলাই, ২০১৮ ২৩:৫৫
কাপাসিয়ায় কৃষকলীগ-যুবলীগ পাল্টাপাল্টি মিছিল, আহত ৫
নিজস্ব প্রতিবেদক
কাপাসিয়ায় কৃষকলীগ-যুবলীগ পাল্টাপাল্টি মিছিল, আহত ৫

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় আজ সন্ধ্যায় কৃষকলীগ ও যুবলীগের পাল্টাপাল্টি শোডাউন মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। হঠাৎ করে ক্ষমতাসীন দলের দু’পক্ষ নিজেদের অবস্থান পাকা করতে পাল্টা শোডাউনে উপজেলা শহরে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। 

কৃষকলীগের দাবি যুবলীগের মিছিল থেকে আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করা হলে ৫ জন আহত হয়। এ সময় ৩-৪টি গাড়িও ভাঙচুর করা হয়েছে। তবে যুবলীগের দাবি, আমরা মিছিল করলেও কোনো হামলার ঘটনা ঘটেনি। পরিস্থিতি থমথমে বিরাজ করছে। নিয়ন্ত্রণে আনতে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জানা গেছে, আজ বিকেলে বাংলাদেশ কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা আলম আহমদের পক্ষে নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়ে সহ্রাধিক নেতাকর্মী উপজেলার প্রধান সড়কে একটি মিছিল বের করে। মিছিল শেষে কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. মোতাহার হোসেন মোল্লার বাসার সামনে নেতা-কমীরা জমায়েত হয়। সমাবেশ শেষে কৃষকলীগ নেতাকর্মীরা শহরের পাইলট স্কুল মসজিদ এলাকায় অবস্থান নেয়। পরে উপজেলা যুবলীগের পাল্টা মিছিল বের করা হয়। যুবলীগের মিছিলটি শহরের থানার মোড় থেকে বাসস্ট্যান্ড গিয়ে পূণরায় মিছিলটি ফেরার সড়কের পাশে দাড়িয়ে থাকা যাত্রীবাহি বাসে ভাঙচুর চালানো হয় এবং কৃষকলীগ নেতাদের লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এ সময় কৃষকলীগের অন্তত ৫ নেতা-কর্মী আহত হয়েছে। পরে যুবলীগের নেতা-কর্মীরা মেইনরোড এলাকায় একটি পথসভা করেন। 

পথসভায় যুবলীগের নেতারা বলেন, কাপাসিয়ার মাটিতে কোনো সন্ত্রাসীর ঠাই নেই। বঙ্গবন্ধু বঙ্গতাজ পরিবারের মধ্যে কোনো ফাঠল ধরানো যাবে না। এ ষড়যন্ত্রের সাথে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ সময় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান প্রধান, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান সাখাওয়াত হোসেন প্রধান প্রমুখ। এর আগে কৃষকলীগের একটি সমাবেশ হয়। 

কৃষকলীগের সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. মোতাহার হোসেন মোল্লা, বাংলাদেশ কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা আলম আহমদ, গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. আব্দুর রশিদ সরকার, বাংলাদেশ কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় সদস্য শাহ জানি আলম কনক, উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান বাবলু প্রমুখ।

এদিকে হঠাৎ আওয়ামী লীগের দু’পক্ষ কাপাসিয়া শহরে পাল্টাপাল্টি শোডাউন করায় পরিবেশ থমথমে বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্ঠা আলম আহমেদ বলেন, কাপাসিয়া উপজেলা শহরে আমরা একটি শান্তিপূর্ণ মিছিল করেছি। আমাদের মিছিলে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে শত শত নেতা-কর্মী অংশ নেয়। কিন্তু আমাদের এই শান্তিপূর্ণ মিছিল দেখে হিংসায় যুবলীগ একটি পাল্টা মিছিল করে আমাদের নেতা-কর্মীদের উপর হামলা চালায়।

কাপাসিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মাহবুব উদ্দিন সেলিম বলেন, কাপাসিয়ার মাটিতে কোনো অবৈধ টাকার মালিক সন্ত্রাসীদের ঠাই দেয়া হবে না। তারা সমাজের শত্রু, কাপাসিয়ার শত্রু।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow