Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৪ জুন, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৩ জুন, ২০১৮ ২৩:২৪
ইতিহাস
ভেনিস অভিযান

১৬৬৭ খ্রিস্টাব্দে আহম্মদ কান্দিয়ায় যুদ্ধাভিযান করেন এবং তিন বছর অবরোধ করে রাখেন। ভেনিসীয়দের বিরোধিতা সত্ত্বেও দ্বীপটি তুরস্কের দখলে আসে এবং ভেনিসীয় প্রজাতন্ত্র তুরস্কের সঙ্গে সন্ধি করতে বাধ্য হয়। ক্রিট অধিকৃত হলে তুর্কিদের সেন্ট গথহার্ড যুদ্ধে পরাজয়ের গ্লানি মুছে যায়। আহম্মদ ১৬৭২ খ্রিস্টাব্দে পোল্যান্ডে সমরাভিযান করেন। এ অভিযানের উদ্দেশ্য ছিল ইউক্রেনের কশাকদের পোলিশ অত্যাচারের বিরুদ্ধে সাহায্য দান করা। পোল্যান্ডের রাজা রাশিয়ার জারের সঙ্গে একত্র হয়ে তুরস্কের বিরুদ্ধে সমর প্রস্তুতি গ্রহণ করেন। তুরস্ক ক্যামেনিক দখল করে এবং পোল্যান্ডের রাজা পরাজিত হয়ে বুকাকের সন্ধি করতে বাধ্য হন। এ সন্ধির শর্তানুযায়ী ইউক্রেন, পেডোলিয়া ও ক্যামেনিক তুরস্কের অধীনে আসে। কিন্তু পরে পোলগণ এ সন্ধি অমান্য করে তুরস্কের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে। এ যুদ্ধ ১২ বছর স্থায়ী হয়। ১৬৭৩ খ্রিস্টাব্দে ককজিমে এবং ১৬৭৪ খ্রিস্টাব্দে লেমবার্গে তুর্কিবাহিনী পোলদের হাতে পরাজয়বরণ করে। কিন্তু ১৬৭৬ খ্রিস্টাব্দে আহম্মদ কুপ্রিলি ইব্রাহিম পাশার নেতৃত্বে এক অভিযান প্রেরণ করে পোলদের বিধ্বস্ত করেন এবং সমগ্র পেডোলিয়া তুরস্কের আয়ত্তে আসে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow