Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • চাটাইয়ে মুড়িয়ে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় সম্মান!
  • কেরানীগঞ্জে বাচ্চু হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি, ৭ জনের যাবজ্জীবন
  • ৩ মামলায় জামিন চেয়ে হাইকোর্টে খালেদার আবেদন
  • হালদা নদীর পাড়ের অবৈধ স্থাপনা ভাঙার নির্দেশ
  • আফগানিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা
  • কাদেরের বক্তব্যে একতরফা নির্বাচনের ইঙ্গিত: রিজভী
  • কলারোয়া সীমান্তে স্বামী-স্ত্রীসহ ৩ বাংলাদেশিকে ফেরত দিল বিএসএফ
  • বিএনপি নির্বাচনে না এলেও গণতন্ত্র অব্যাহত থাকবে: কাদের
প্রকাশ : ১৮ এপ্রিল, ২০১৮ ১১:৫৫ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৮ এপ্রিল, ২০১৮ ১৩:১১
খুব ভালো লাগে অবাঙালি কাউকে বাংলাকে ভালোবাসতে দেখলে
তসলিমা নাসরিন
খুব ভালো লাগে অবাঙালি কাউকে বাংলাকে ভালোবাসতে দেখলে

মুচকুন্দ দুবে। ৮৫ বছর বয়স। এখনও লিখছেন, পড়ছেন, ভাবছেন, একশ রকম কাজ করছেন। মাথাটা ঝকঝকে।

একসময় বাংলাদেশে ছিলেন ভারতের রাষ্ট্রদূত হয়ে। তখনই হয়তো লালনকে ভালোবাসতে শুরু করেছিলেন।

দিল্লির সাহিত্য একাডেমি থেকে লালন ফকিরকে নিয়ে লেখা তাঁর মূল্যবান বইটি বেরিয়েছে। ১০৫টা লালন গীতি হিন্দিতে অনুবাদ করেছেন। এই প্রথম লালনের বাংলা গানকে হিন্দি গানে রূপান্তরিত করার কাজ করলেন একজন। ফরিদা পারভিনকে ঢাকা থেকে দিল্লিতে ডেকে এনে তাঁকে দিয়ে হিন্দিতে লালন গীতি গাইয়ে একটি সিডিও বের করেছেন। তবে ফরিদা পারভিনের হিন্দি উচ্চারণ নাকি অলমোস্ট বাংলার মতোই, একটু এলোমেলো বাংলা। তাই মুচকুন্দ দুবে, হিন্দি উচ্চারণ ভালো, আবার লালনের গানও গাইতে জানেন, এমন কাউকে খুঁজছেন। আমার সঙ্গে মুচকুন্দ দুবের অনেক বছরের পরিচয়। আজ আমাকে তাঁর বইটি উপহার দিলেন।

খুব ভালো লাগে অবাঙালি কাউকে বাংলাকে ভালোবাসতে দেখলে।

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

বিডি-প্রতিদিন/১৮ এপ্রিল, ২০১৮/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

up-arrow