Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৮ মে, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৭ মে, ২০১৮ ২৩:০৪
বুকের ওপর দিয়ে গেল বাস
দুই বাসের ভয়ঙ্কর প্রতিযোগিতায় নিহত বিজ্ঞাপন কর্মী
নিজস্ব প্রতিবেদক
বুকের ওপর দিয়ে গেল বাস

রাজধানীর শ্যামপুর থেকে মোটরসাইকেলে গুলিস্তান যাচ্ছিলেন নাজিম উদ্দিন। ধোলাইপাড় দিয়ে মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে উঠতেই দুই বাসের প্রতিযোগিতার মুখে পড়েন। শ্রাবণ সুপার পরিবহন ও মঞ্জিল পরিবহনের মধ্যে চলছিল প্রতিযোগিতা। শ্রাবণ পরিবহনের বাসটি নাজিমের মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। ছিটকে পড়েন নাজিম। পরে বাসটি দ্রুত তার বুকের ওপর দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলে প্রাণ হারান ৩২ বছর বয়সী নাজিম। নগরে বাসের বিভীষিকাময় প্রতিযোগিতার আরেক বলি এই নাজিম। গতকাল সকালে মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারের যাত্রাবাড়ী অংশে মালঞ্চ কমিউনিটি সেন্টারের ঠিক ওপরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, ঢাকা ট্রিবিউনের বিজ্ঞাপন বিভাগের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ছিলেন নাজিম। তার স্ত্রীর নাম সাবরিনা ইয়াসমিন আইরিন। ওই দম্পতির নুসরাত জাহান মুন (৮) ও ইসরাত জাহান নুর (৩ দিন) নামে দুই মেয়ে রয়েছে। তিনি পরিবার নিয়ে শ্যামপুরের করিমুল্লারবাগ এলাকায় থাকতেন। প্রত্যক্ষদর্শী রাসেল মাহমুদ ও নাঈম ইসলাম মোটরসাইকেলে গুলিস্তানের দিকে যাচ্ছিলেন। তারা বলেন, আহত নাজিমকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে যান রাসেল। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। রাসেল জানান, তারা প্রতিযোগী বাস দুটির পেছনে ছিলেন। আর নাজিমের মোটরসাইকেলটি ছিল বাস দুটির সামনে। দুটি বাসই বেপরোয়াভাবে চলছিল। এর মধ্যে শ্রাবণ পরিবহনের বাসটি নাজিমের মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। নাজিম ছিটকে পড়লে তার বুকের ওপর দিয়েই বাসটি চলে যায়। নাঈম জানান, নাজিমকে শ্রাবণ পরিবহনের বাসটি চাপা দেওয়ার পর তিনি গুলিস্তানের সার্জেন্ট আহাদ পুলিশ বক্সে যান। সেখানে এসআই সোলায়মানকে ঘটনা জানান। এরপরই শ্রাবণ পরিবহনের চালক ওহিদুল  ও মঞ্জিল পরিবহনের হেলপার কামালকে আটক করা হয়। জব্দ করা হয় বাস দুটি। ঢাকা ট্রিবিউনের সাংবাদিক রাব্বী রহমান জানান, শ্যামপুর এলাকায় নাজিমের বাসা। মাত্র তিন দিন আগে তিনি সন্তানের বাবা হয়েছেন। তার স্ত্রী হাসপাতালে। ঢামেক মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মসজিদে নাজিমের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে তার মরদেহ কর্মস্থল ঢাকা ট্রিবিউন অফিসে নেওয়া হয়। শ্যামপুরে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর তার মরদেহ গ্রামের বাড়ি ভোলার লালমোহন থানার বালুরচরে নেওয়া হয়।

যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান বলেন, সকালে ফ্লাইওভারের যাত্রাবাড়ী অংশে মালঞ্চ কমিউনিটি সেন্টারের ঠিক ওপরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নাজিম উদ্দিনের মৃত্যুর ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। ওই মামলায় শ্রাবণ পরিবহনের চালক ওহিদুল এবং মঞ্জিল পরিবহনের হেলপার কামালকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

বাসচাপায় পা হারানো আলাউদ্দিনও চলে গেলেন : রাজধানীতে মেয়র হানিফ উড়ালসড়কে বাসের চাপায় পা হারানো কমিউনিটি পুলিশের সদস্য আলাউদ্দিন সুমন মারা গেছেন। গতকাল রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। ঢাকা মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক বাচ্চু মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow