Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৩ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১২ এপ্রিল, ২০১৮ ২২:৩৭
কেশ সাজ
খোঁপার বৈভবে
নতুন দিনের আয়োজন। রঙে ঢঙে রঙিন চারপাশ। লাল-সাদা শাড়ি, হাতভরা রেশমি চুড়ি, চোখে কাজল আর খোঁপায় সুরভিত ফুলের মালা।
উম্মে হানি
খোঁপার বৈভবে
ছবি: সোনালী মেকআপ স্টুডিও

বৈশাখী সাজ হওয়া চাই প্রাণবন্ত। আর চুলের সাজের মূল আকর্ষণই নানা ফুলের ব্যবহার। এ ক্ষেত্রে চুলের আকার ও ধরন অনুযায়ী কেশ সাজ করতে হবে বলে মনে করেন বিউটি এক্সপার্ট সোনালি ফেরদৌস মজুমদার। তিনি বলেন, ‘ব্যক্তিত্ব, ভালো-মন্দ এবং গড়ন বুঝে চুলে খোঁপা করতে পারেন। সঙ্গে জুড়ে নিতে পারেন পছন্দের যে কোনো ফুল।’ তিনি আরও বলেন, ‘কপালের ধরন, গলার দৈর্ঘ্য, চুলের ধরন, মুখের গড়ন ইত্যাদি বুঝে খোঁপার ধরন ও ফুল বেছে নিতে হবে। আবার খোলা চুলে কানে গুজে নিতে পারেন যে কোনো ফুল।’

 

বৈশাখী খোঁপা

একটু উঁচু পনিটেইল করে বেঁধে স্পঞ্জের মোটা ব্যান্ড নিয়ে বাঁধা চুলে ঢুকান। খেয়াল রাখুন চুলগুলো যেন কয়েকটি লেয়ারে থাকে। এবার ব্যান্ডটি ধীরে ধীরে চুলের সঙ্গে শেষ পর্যন্ত মোড়ান। মোড়ানো শেষ হলে খোঁপার চারপাশে সমানভাবে চুলগুলো সাজিয়ে নিন। সবশেষে খোঁপার নিচে হেয়ার ক্লিপ দিয়ে আটকে হেয়ার স্প্রে দিয়ে দিন।

 

বেণি খোঁপা

চুল ভালো করে আঁচড়ে মাথার মাঝখানের চুলগুলো নিয়ে বেণি করুন। বেণি শেষে চিকন ব্যান্ড দিয়ে চুল আটকে নিন। এবার পেছনের চুলগুলো চিকন রাবার ব্যান্ডে আটকে খোঁপা করার জন্য স্পঞ্জ ব্যান্ড চুলের ভিতর দিয়ে ঢুকান। বাঁধা চুলগুলো খোঁপা করে নিন। সবশেষে ক্লিপ দিয়ে আটকে নিন।

 

ববি খোঁপা

এ খোঁপাটি করতে, মাঝখানে সিঁথি করে দুই পাশে দুটি পনিটেইল করে নিতে হবে। এবার দুদিকেই খানিকটা ফোল্ড করে চুলগুলো ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে পেঁচিয়ে পিন দিয়ে আটকে নিতে হবে। দীর্ঘ সময় রাখতে হেয়ার স্প্রে করে নিন।

 

এলোমেলো খোঁপা

চুল ভালো মতো আঁচড়ে নিয়ে পেছন থেকে কয়েকটি লেয়ারে চুল ভাগ করে উঁচু পনি টেইল বাঁধুন। এবার চুলে হেয়ার ক্রিম লাগিয়ে চিকন হেয়ার ব্যান্ড লাগিয়ে নিন। এবার এলোমেলোভাবে ফোল্ড করে চুলগুলো ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে পেঁচিয়ে পিন দিয়ে আটকে নিন। দীর্ঘ সময় রাখতে হেয়ার স্প্রে করে নিন।

 

 

টুইস্ট খোঁপা 

অর্ধেক চুল সামনে ও পেছনে দুই ভাগে ভাগ করে পেছনের ভাগের কিছু চুলে খোঁপা করে ক্লিপ দিয়ে আটকে নিন। এবার বাকি চুলগুলো কয়েক ভাগে ভাগ করে টুইস্ট করে পেঁচিয়ে মূল খোঁপার সঙ্গে মিলিয়ে আটকে নিন। সঙ্গে খোঁপায় পরে নিন জারভেরা, কাঠগোলাপ বা জিনিয়া ফুল।

 

বিড়া খোঁপা

সামনে-পেছনের চুলগুলোকে ব্যাক কম্ব করুন। মসৃণভাবে উল্টে আঁচড়ে নিন। এবার চুলগুলো পনি টেইল করে নিন। পনিটেইলকে চার ভাগ করে এবার উপরে, নিচে, ডানে, বাঁয়ে চারটি বান করতে হবে। বানগুলো যেন পরস্পরের সঙ্গে ভালোভাবে মিশে যায়।

 

ফ্রেঞ্চ টুইস্ট খোঁপা

সামনের অল্প কিছুটা জায়গা ব্যাক কম্ব করে নিন। চুলগুলো মসৃণভাবে আঁচড়ে নিয়ে ক্লিপ দিয়ে আটকান। একটু দূরত্বে আবারও ক্লিপ আটকান। এবার চুলগুলোকে ফ্রেঞ্চ টুইস্টের মতো ঘুরিয়ে ক্লিপ দিয়ে আটকে নিন।

 

হালকা খোঁপা

প্রথমেই সামনের কিছুটা চুল আলাদা করে নিন। বাকি চুল ব্যাক কম্ব করে বিড়া খোঁপা করুন। সামনের চুলগুলোকে আলগা করে বিড়া খোঁপার সঙ্গে আটকে দিন। এই খোঁপা ছোট হলে হালকাভাবে ক্লিপ দিয়ে সামনে আটকে রাখুন।

যারা চুল ছাড়া রাখতে চান, তারা চুল সেট করে নিয়ে যে কোনো এক পাশে কসমস, ডালিয়া চন্দ্রমল্লিকা পরে নিতে পারেন। এ ছাড়া চুলে বেণি করলে বেণির ভাঁজে বা খোলা চুলে কানের পাশে গুঁজে নিতে পারেন অপরাজিতা ফুল বা খোঁপায় এক থোকা বাগানবিলাস কিংবা মাধবীলতার কয়েকটি পাতা।

এই পাতার আরো খবর
সর্বাধিক পঠিত
up-arrow