Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৩ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১২ জুলাই, ২০১৮ ২১:৩৯
অফিসে খাওয়া-দাওয়া
অফিসে খাওয়া-দাওয়া

অফিসের নানা ব্যস্ততা। কিন্তু নিজের প্রতি সুনজর না রাখলে সব আয়োজনই ফিঁকে। সারা দিনের ব্যস্ততায় সঠিক ডায়েট প্ল্যান নিয়ে অনেকেরই থাকে নানা দ্বিধা। তাই খাবারে চলে হরহামেশাই অনিয়ম। কিন্তু শত ব্যস্ততার মাঝেও সঠিক খাওয়া-দাওয়া করা একান্ত প্রয়োজন। রইল সঠিক ডায়েট চার্ট।

 

আমেরিকান এক বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞরা দীর্ঘদিনের এক সমীক্ষার কথা তুলে ধরেন। সেখানে দেখা গেছে, ‘অফিসে কাজের ভিড়ে বারবার কম পরিমাণে খাওয়া-দাওয়া করলে ভালো। এতে দিনভর এনার্জেটিক থাকা যায় এবং কাজে মনোযোগ অটুট থাকে।  

 

♦  অফিসে সারা দিন ব্যস্ত থাকলেও খাওয়া-দাওয়া নিয়ে অবহেলা করবেন না। একবারে বেশি না খেয়ে প্রতিদিন পাঁচ থেকে ছয়টা ছোট ছোট মিল করে খাওয়া-দাওয়া করতে পারেন। ছোট ছোট মিলে মৌসুমি ফল, সবজি বা শসা, টমেটো, গাজর, বিট, পুদিনা, ধনেপাতা ইত্যাদি দিয়ে বানানো জুস রাখতে পারেন। এ ছাড়া সালাদের সঙ্গে স্যান্ডউইচ রাখতে পারেন।

 

♦  শরীরে এনার্জির পরিমাণ ঠিক রাখতে সঠিক পদ্ধতিতে খাওয়া প্রয়োজন। অফিসের সময়টা প্রসেসড বা রিফাইন্ড (সাদা চিনি, মধু, ফ্রুক্টোজ, মেপল সিরাপ, অ্যালকোহল, নিকোটিন ইত্যাদি) গ্রহণ না করাই ভালো। এগুলো শরীরের ভিটামিনের পরিমাণ কমিয়ে দেয়।

 

♦  ব্রেনের বিভিন্ন হরমোন এবং উেসচকের সঞ্চালনা ঠিক রাখতে ওমেগা-৩-ফ্যাটি অ্যাসিডযুক্ত (আখরোট, মাছ) খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। অফিসে মুড ভালো এবং শরীরকে এনার্জেটিক রাখতে ভাত, আলু, পাস্তা পাউরুটি ইত্যাদি কার্বোহাইড্রেট খাবার খেতে পারেন। তবে অল্প পরিমাণে খেতে হবে। কেননা, বেশি খেলে ক্লান্ত লাগতে পারে। এ ছাড়াও সবুজ সবজি এবং বাদাম খেলেও দারুণ উপকার পাবেন।

 

♦  শরীর ভালো রাখতে এবং এনার্জির পরিমাণ ঠিক রাখতে ঘুমের বিকল্প নেই। আপনার লাইফস্টাইলে সামান্য পরিবর্তন আনুন যেন ঘুমের পরিমাণে কমতি না থাকে। রাতে অন্তত ৭ ঘণ্টা ঘুমানোর চেষ্টা করুন। আর অবশ্যই সারা দিন প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন। শরীর ও মন দুটোই ভালো থাকবে।

এই পাতার আরো খবর
সর্বাধিক পঠিত
up-arrow