Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : সোমবার, ১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৫ এপ্রিল, ২০১৮ ২২:৫১
খুলনার মেয়র পদে ৫ প্রার্থীই বৈধ
নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

খুলনা সিটি করপোরেশন (কেসিসি) নির্বাচনে মেয়র পদে পাঁচ প্রার্থীকেই বৈধ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। বৈধ মেয়র প্রার্থীরা হলেন— আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও দলের মহানগর সভাপতি তালুকদার আবদুল খালেক, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ও দলের মহানগর সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, জাতীয় পার্টি মনোনীত শফিকুর রহমান ওরফে মুশফিকুর রহমান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত মাওলানা মুজ্জাম্মিল হক এবং বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি-সিপিবি মনোনীত প্রার্থী দলের মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবু। গতকাল বেলা ১১টায় মেয়র পদে পাঁচ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে রিটার্নিং অফিসার ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ইউনুচ আলী সব প্রার্থীকে বৈধ ঘোষণা করেন। মেয়র পদে এই পাঁচ জনই মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। দুদিনব্যাপী মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের প্রথম দিনে মেয়র, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর ও ১ থেকে ১০নং ওয়ার্ডের সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাছাই করা হয়। নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মো. ইউনুস আলী জানান, মনোনয়ন যাচাই-বাছাই করে ৫ মেয়র প্রার্থীকেই বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। তবে সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলরদের মধ্যে কয়েকজন ঋণখেলাপি থাকায় তাদের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। আজ (সোমবার) ১১ থেকে ৩১নং ওয়ার্ডের সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই করা হবে। অপরদিকে আগামী ২৮ এপ্রিল খুলনার উন্নয়ন, দাবি আদায় ও নাগরিক সংকট-সমাধান নিয়ে জনতার মুখোমুখি হচ্ছেন খুলনার ৫ মেয়র প্রার্থী। বেসরকারি সংস্থা সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। গতকাল দুপুরে খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে সুজন-এর জেলা সম্পাদক অ্যাডভোকেট কুদরত-ই খুদা এসব কথা জানান। তিনি বলেন, আমরা সৎ, যোগ্য ও খুলনার উন্নয়নের জন্য কাজ করবে এমন প্রার্থী নির্বাচনের আহ্বান জানিয়েছি। প্রার্থীদের হলফনামার পাশাপাশি নির্বাচনে কোনো অনিয়ম বা প্রার্থীর আচরণবিধি লঙ্ঘন হলে তা জনগণের সামনে উপস্থাপন করা হবে। এ ছাড়া ২৮ এপ্রিল জনতার মুখোমুখি অনুষ্ঠানে খুলনার উন্নয়নের দাবি ও নাগরিক সংকট মোকাবিলায় মেয়র প্রার্থীরা কীভাবে পদক্ষেপ নেবেন তা জানা যাবে। সংবাদ সম্মেলনে একইসঙ্গে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। এ সময় সুজন সভাপতি অধ্যক্ষ জাফর ইমাম, নাগরিক নেতা লোকমান হাকিম, অ্যাডভোকেট শামীমা সুলতানা শিলু ও মাসুদুর রহমান রঞ্জু উপস্থিত ছিলেন। খুলনার শহীদ হাদিস পার্কে জনতার মুখোমুখি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow