Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৭ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ২৩:০৪
বামজোট বিতর্ক
তৃতীয় শক্তি হিসেবে বাম দলগুলো নিয়েই থাকব : খালেকুজ্জামান
নিজস্ব প্রতিবেদক
তৃতীয় শক্তি হিসেবে বাম দলগুলো নিয়েই থাকব : খালেকুজ্জামান
খালেকুজ্জামান

আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকে বুর্জোয়া দল আখ্যায়িত করে এই দুই দলের নেতৃত্বাধীন জোটের সঙ্গে কোনো ধরনের সখ্য গড়ে তুলবে না বলে জানিয়েছে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ। এই দুই জোটের বাইরে তৃতীয় শক্তি হিসেবে সব বাম-গণতান্ত্রিক  প্রগতিশীল দল, শক্তি ও ব্যক্তির সমন্বয়ে নির্বাচনী আন্দোলনে শামিল হওয়ার চেষ্টা করছে দলটি। এ ব্যাপারে বাসদ সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান বলেন, দ্বি-দলীয় বৃত্তের বাইরে সিপিবি-বাসদ-বাম মোর্চাসহ অন্যান্য গণতান্ত্রিক-প্রগতিশীল শক্তি মিলে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার চিন্তা আছে। সে লক্ষ্যে আমরা প্রস্তুতিও নিচ্ছি। গতকাল (বুধবার) রাজধানীর তোপখানা রোডে বাসদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন। সাক্ষাৎকারে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের অবস্থান, চলমান ইস্যুভিত্তিক আন্দোলন, বামমোর্চা গঠন, গণতান্ত্রিক তৃতীয় শক্তির বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন কমরেড খালেকুজ্জামান। আগামী নির্বাচন নিয়ে আপনারা কী ভাবছেন, এমন প্রশ্নের জবাবে বাসদ সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচন হবে জনগণের ক্ষমতায়িত শাসন ব্যবস্থার প্রক্রিয়া। নির্বাচন হবে জনগণের বিবেকের ও মতামতের অবিকৃত প্রতিফলন। নির্বাচন হবে সমাজের সব মত ও পথের মিথস্ক্রিয়ায় যুক্তিসঙ্গত মীমাংসার বা গরিষ্ঠজনের মতামতে শাসন-প্রশাসন কাঠামো নির্মাণের সহায়ক। আমরা সিপিবি-বাসদ ও বাম মোর্চার পক্ষ থেকে একটা আপেক্ষিক ন্যূনতম গ্রহণযোগ্যতাসম্পন্ন নির্বাচনী পরিবেশ সৃষ্টির তাগিদ দিয়ে চলেছি। তিনি বলেন, আমাদের লড়াই-সংগ্রামের মূল উদ্দেশ্য নির্বাচন যেন টাকার শক্তি, পেশিশক্তিকে মোকাবিলা করে নীতি-আদর্শের শক্তি-সামর্থ্যকে তুলে ধরতে ও প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়। নির্বাচন হবে সাম্প্রদায়িকতা-আঞ্চলিকতার ব্যুহ ভেদ করে মানব মিলনের মানবিক প্রচেষ্টা। তিনি বলেন, নির্বাচনে ক্ষমতাসীন ও ক্ষমতাপ্রত্যাশী প্রধান দলগুলো জনমতের চাপের কাছে নত হতে বাধ্য হবে। পরমতসহিষ্ণুতা ও গণতান্ত্রিক সংস্কৃতি থাকবে, সংঘাত-সংঘর্ষ থাকবে না— এমন নির্বাচনের জন্য আমাদের লড়াই সংগ্রাম ছিল, অব্যাহত থাকবে। আগামী নির্বাচন নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করে কমরেড খালেকুজ্জামান বলেন, ৪৭ বছর ধরে ক্ষমতাসীন শাসক গোষ্ঠীরা একটা সুষ্ঠু-সুন্দর নির্বাচনের পরিবেশ কল্পনা করাকেও দুঃসাধ্য করে তুলেছে। অথচ এটাই ছিল আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের গণআকাঙ্ক্ষায় বিমূর্তরূপ, যা আমরা অর্জন করতে পারিনি। আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়েও একটা ঘোলাটে পরিবেশ পরিস্থিতি চলছে বলে আশঙ্কা করেন তিনি। নির্বাচন নিয়ে বাসদসহ বামশক্তিগুলোর প্রস্তুতি কেমন জানতে চাইলে  কমরেড খালেকুজ্জামান বলেন, নির্বাচনের মূল ক্ষমতার মালিক জনগণ। কিন্তু নির্বাচনের পরিবেশ-পরিস্থিতি নিয়ে এখনো ক্ষমতার মূল মালিকদের শঙ্কা, দ্বিধা-দ্বন্দ্বই কাটেনি।

তবে নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত হলে অবশ্যই নির্বাচনে যাব। সেই ভাবনা আমাদের আছে এবং এ লক্ষ্যে আমরা জোরালো প্রস্তুতিও নিচ্ছি। জোটগতভাবে নির্বাচন করার কোনো পরিকল্পনা আছে কিনা? থাকলে এই জোট কাদের সঙ্গে করবেন— এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ক্ষমতাসীন ও ক্ষমতাপ্রত্যাশী প্রধান দুই বুর্জোয়া দল ও জোটের বাইরে সব বাম-গণতান্ত্রিক প্রগতিশীল দল, শক্তি, ব্যক্তির সমন্বয়ে নির্বাচনী আন্দোলনে শামিল হওয়ার চেষ্টা আমাদের রয়েছে। এই দ্বি-দলীয় বৃত্তের বাইরে তৃতীয় একটি জোট গঠন করব আমরা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow