Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৭ মে, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৬ মে, ২০১৮ ২৩:১০
ডিএসসিসি মেয়রের ৩ বছর পূর্তি
বাকি মেয়াদেই বাসযোগ্য ঢাকার অঙ্গীকার
নিজস্ব প্রতিবেদক
বাকি মেয়াদেই বাসযোগ্য ঢাকার অঙ্গীকার

বাকি মেয়াদের মধ্যেই বাসযোগ্য ঢাকা উপহারের অঙ্গীকার করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। তিনি বলেন, রাজধানী ঢাকা মোটেই বসবাসের অনুপযোগী শহর নয়। এই শহর যদি বসবাসের অযোগ্য হতো তাহলে প্রতি বছর ৬ শতাংশ মানুষ এ শহরে বৃদ্ধি পেত না। এই শহরকে নতুন প্রজন্মের কাছে বাসযোগ্য ও আধুনিক শহর উপহার দিতে চাই। সেটা এই মেয়াদেই করতে চাই। মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালনের তিন বছর পূর্তি উপলক্ষে গতকাল নগর ভবনের সভাকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন মেয়র মোহাম্মদ  সাঈদ  খোকন।

মেয়র খোকন বলেন, আগামী সপ্তাহ থেকে আমাদের মনিটরিং টিম প্রতিটি ওয়ার্ডে যাবে। কোনো বাসায় এডিস মসার লার্ভা পাওয়া গেলে সেটা ধ্বংস করবে। পাশাপাশি বাসাবাড়ির মালিকদের সচেতন করা হবে যেন মশার বংশবিস্তার না ঘটে। জলসবুজের ঢাকা প্রকল্পের কথা উল্লেখ করে মেয়র বলেন, আমরা আগেই ঘোষণা দিয়েছিলাম, ডিএসসিসি এলাকার যেসব বাড়ির মালিক তার বাড়ির ছাদে বা বারান্দায় অথবা আঙ্গিনায় গাছ লাগাবেন তাদের হোল্ডিং ট্যাক্স ১০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হবে। আপন?ারা বাসায় গাছ লাগান। আর গাছের ছবি তুলে আমাদের দেন। আমরা ১০ শতাংশ গৃহকর ছাড় দেব। তিন বছরের কাজ ও আগামী কর্মপরিকল্পনা তুলে ধরে মেয়র বলেন, দায়িত্ব গ্রহণের সময় যে অবস্থা ছিল তা থেকে অনেক উত্তরণ হয়েছে। আগে যেখানে ৮৫ ভাগ সড়কে বাতি জ্বলত না এখন ৯০ ভাগ রাস্তায় এলইডি বাতির আলোতে আলোকিত। ৮০ ভাগ রাস্তাই চলাচলের অনুপযোগী ছিল এখন ৯০ ভাগ রাস্তা চলাচলের উপযোগী। আমাদের টার্গেট শতভাগ না হলেও ৯৫ ভাগ সড়ক চলাচলের উপযোগী করে তুলব।  তিনি বলেন, ঢাকা দক্ষিণে মেগা প্রকল্পের আওতায় নতুন করে ৩০টি বাস বে ও বাস স্টপেজ নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এ পর্যন্ত ১৯টি অত্যাধুনিক পাবলিক টয়লেট নির্মাণ করা হয়েছে। জলসবুজের ঢাকা প্রকল্পের আওতায় খেলার মাঠ, পার্ক উদ্ধার করে আধুনিকভাবে সজ্জিত করতে কাজ শুরু হয়েছে। নগরবাসীর নাগরিক জীবনের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। আপনারা আমাদের সঙ্গে থাকুন, পাশে থাকুন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ বিলাল, বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলরসহ নগরভবনের কর্মকর্তারা।

 সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই কাউন্সিলরদের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয় মেয়রকে। এরপর ডিএসসিসির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পক্ষ থেকেও শুভেচ্ছা জানানো হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow