Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১১ জুলাই, ২০১৮ ০৩:২৩ অনলাইন ভার্সন
সুস্থ থাকতে চাইলে তেজপাতাকে অবহেলা নয়
অনলাইন ডেস্ক
সুস্থ থাকতে চাইলে তেজপাতাকে অবহেলা নয়

রান্নার ইতিহাসে তেজপাতা একটি পরিচিত নাম। রান্নার মশলা হিসেবে তেজপাতা সাধারণত ব্যবহিত হয়। কিন্তু জানেন কি এই তেজপাতায় ঔষুধি গুনাগুণ আছে। প্রাচীন সময় থেকে তেজপাতা মশলার পাশাপাশি ঘরোয়া ঔষুধ হিসেবে ব্যবহিত হয়ে আসছে। আসুন, জেনে নেওয়া যাক, তেজপাতার আরও অনেক গুণ সম্পর্কে-


১) হজমশক্রি বাড়ায়, ফলে শরীরের মেটাবলিজমের হারও বৃদ্ধি পায়। ফলে ওজন অনেকটাই কমে। এছাড়াও, পেটফাঁপা, বদহজম, বুকে জ্বালা কমাতে তেজপাতা এক্সপার্ট। অরুচি হলে, রান্নায় তেজপাতা দিন। মুখে স্বাদ ফিরবে।

২) তেজপাতায় রয়েছে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল উপাদান যা হার্টের ইনফেকশন কমায়। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। সর্দিকাশি, কফ জমা, ফ্লুতে তেজপাতা সেদ্ধ করে সেই পানি খান কিংবা তেজপাতা সেদ্ধ করে বেটে, বুকে মালিশ করুন। নিমেষে আরাম পাবেন।

৩) ব্যথা কমাতে সিদ্ধহস্ত তেজপাতা। চোট লেগে ফুলে গেলে তেজপাতার তেল মালিশ করুন। মাথাব্যাথা, মাইগ্রেনের ব্যথাতেও ম্যাজিকের মতো কাজ করে তেজপাতার তেল।

৪) কিডনির প্রদাহ কমাতে তেজপাতা পানিতে সেদ্ধ করে, সেই পানি খান। কিডনিতে পাথর হলেও তেজপাতা সেদ্ধ করা পানি কাজে দেয়।

৫) তেজপাতা ত্বকের যত্ন নিতেও সহায়তা করে। চন্দন ও তেজপাতা একসাথে বেটে ত্বকে লাগিয়ে ঘণ্টাখানেক রাখুন। তারপর ধুয়ে নিন। ত্বক উজ্জ্বল ও সতেজ দেখাবে। গায়ে দুর্গন্ধ থাকলে তা দূর হয়ে যাবে।


বিডি প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত তাফসীর

আপনার মন্তব্য

up-arrow