Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৪ জুন, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৩ জুন, ২০১৮ ২৩:১৭
শোলাকিয়ায় ঈদ জামাতের নিরাপত্তায় এবার যুক্ত হচ্ছে ড্রোন
সাইফউদ্দীন আহমেদ লেনিন, কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় এবারের ঈদুল ফিতরের জামাতের নিরাপত্তায় প্রথম বারের মতো যুক্ত হচ্ছে ড্রোন। তিনটি ড্রোন ক্যামেরার মাধ্যমে ঈদগাহ ও এর আশপাশ নিবিড় পর্যবেক্ষণ করা হবে। কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ সুপার বলেন, ২০১৬ সালে জঙ্গি হামলার প্রেক্ষাপটে কোনো কিছুকেই খাটো করে দেখা হচ্ছে না। সবদিক মাথায় রেখেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা সাজানো হয়েছে। ঈদের দিন ঈদগাহসহ পুরো এলাকাকে ১০টি সেক্টরে ভাগ করে চার স্তরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে তিনি আরও জানান, ঈদের দিন নিরাপত্তার দায়িত্বে প্রায় সাড়ে ১১শ’ পুলিশ মোতায়েন থাকবে। পাশাপাশি র‌্যাব এবং পাঁচ প্লাটুন বিজিবিও থাকবে। এ ছাড়া সাদা পোশাকে পুলিশ ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা থাকবেন। ঈদগাহে প্রবেশে চেকপোস্ট থাকবে ২৪টি। পুলিশের স্থির ডিউটি (পিকেট ডেপ্লয়মেন্ট) থাকবে ১২টি স্থানে। ত্বরিত দায়িত্ব পালনের জন্য (কুইক রেসপন্স টিম) তিনটি টিম রাখা হয়েছে। এর মধ্যে বোম ডিসপোজাল টিমও থাকবে। এ ছাড়া মাঠে ওয়াচ টাওয়ারের মাধ্যমেও নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করা হবে। মাঠে আর্চওয়ে থাকবে। প্রত্যেক মুসল্লিকে তল্লাশির মাধ্যমে মাঠে প্রবেশ করানো হবে।

পুলিশ সুপার আরও জানান, ঈদের প্রায় ১৫ দিন আগে থেকেই শোলাকিয়া ঈদগাহ ও এর আশপাশে বাড়িঘর ও হোটেলে তল্লাশি করা হচ্ছে। স্থানীয় জনগণ এ ব্যাপারে ইতিবাচক সাড়া দিচ্ছে বলে তিনি জানান। জনগণকে সচেতন করার জন্য শহরে মাইকিংও করা হচ্ছে। মুসল্লিদের শুধু জায়নামাজ ছাড়া অন্য কোনো কিছু সঙ্গে না নিয়ে আসার জন্যও প্রশাসনের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow