Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বুধবার, ১১ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১১ জুলাই, ২০১৮ ০৩:১৫
বিনা দোষে জেল সেই বাদলের মুক্তির রিটের আদেশ আজ
নিজস্ব প্রতিবেদক

বিনা দোষে হত্যা মামলায় আসামি হয়ে ভারতের কারাগারে ১০ বছর ধরে বন্দী থাকা বাদল ফরাজীর মুক্তির জন্য দায়ের করা রিটের ওপর আজ আদেশের দিন ধার্য হয়েছে। শুনানি শেষে গতকাল বিচারপতি জে বি এম হাসান এবং বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাই কোর্ট বেঞ্চ এ দিন ধার্য করে।

বাদল ফরাজীকে বন্দী বিনিময় চুক্তির আওতায় বাংলাদেশে আনা হয়েছে। তিনি ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন রিটকারী আইনজীবী হুমায়ুন কবির পল্লব, তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মোহাম্মদ কাওছার। বাদল ফরাজীর মুক্তি চেয়ে ৮ জুলাই হাই কোর্টে রিট দায়ের করা হয়। রিটে স্বরাষ্ট্র সচিব, আইন সচিব, পররাষ্ট্র সচিব ও আইজি প্রিজনকে বিবাদী করা হয়েছে।

পরে আইনজীবী হুমায়ুন কবির পল্লব সাংবাদিকদের বলেন, এই বাদল ফরাজী আর ভারতের সেই মামলার অভিযুক্ত ব্যক্তি এক নয়। তার নাম ছিল বাদল সিং। ওই হত্যাকাণ্ডের সময় বাদল ফরাজী ভারতে ছিলেন না। তখন তিনি বাংলাদেশে ছিলেন। তিনি নির্দোষ। তাকে ফিরিয়ে আনা হলেও কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়েছে। নির্দোষ ব্যক্তিকে কেন কারাগারে রাখা হবে এই মর্মে রিট দায়ের করেছিলাম।

উল্লেখ্য, ভারতের দিল্লির তিহার জেলে খুনের মামলায় আসামি হয়ে প্রায় ১০ বছর ধরে জেল খেটেছেন বাংলাদেশি বাদল ফরাজী। ২০০৮ সালের ৬ মে দিল্লির অমর কলোনির এক বৃদ্ধাকে হত্যার ঘটনায় দিল্লির পুলিশ বাদল সিং নামে এক ব্যক্তিকে খুঁজছিল। ওই বছরের ১৩ জুলাই ট্যুরিস্ট ভিসায় বেনাপোল সীমান্ত পার হওয়ার পরপরই ওই হত্যা মামলায় বাদল ফরাজীকে গ্রেফতার করে ভারতের পুলিশ। বাদল সিং মনে করে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর সেখানে বিচার শেষে তাকে ওই মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow