Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৫:২৫ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৫:২৬
নিউইয়র্কে বগুড়া ডিস্ট্রিক্ট অ্যাসোসিয়েশনের বিজয় সমাবেশে ই্উএস এটর্নী মঈন চৌধুরী
'একাত্তরে বাংলাদেশের বিজয়ের ঘটনাটি প্রবাসীদের জন্যও অহংকার'
এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে:
'একাত্তরে বাংলাদেশের বিজয়ের ঘটনাটি প্রবাসীদের জন্যও অহংকার'

যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের খ্যাতনামা আইনজীবী এবং কুইন্স ডিস্ট্রিক্ট ডেমক্র্যাটিক পার্টির লিডার এটর্নী মঈন চৌধুরী বলেন, ‘১৯৭১ সালে ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত বাংলাদেশের বিজয়ের ঘটনাটি প্রবাসীদের জন্যও অহংকার, গর্ব ও ত্যাগের প্রতীক।’ 

তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতা যুদ্ধে প্রবাসী বাংলাদেশিদের অবদান অনস্বীকার্য। তৎকালীন প্রবাসী বাঙালীদের সফল কূটনৈতিক তৎপরতার কারণে স্বল্প সময়ে বিভিন্ন দেশের সহযোগিতায় বাংলাদেশের পক্ষে জনমত গঠন ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি লাভের পথ সুগম হয়।’

যুক্তরাষ্ট্রের এক সমীক্ষার উদ্ধৃতি দিয়ে এটর্নী মঈন চৌধুরী আরও বলেন, ‘একজন প্রবাসীর আয়ের উপর ১৮ জন বাংলাদেশি বিভিন্নভাবে নির্ভরশীল। সরকারের সহযোগিতা ও অনুকূল মনোভাবই প্রবাসীরা দেশের উন্নতির জন্য আরো কাজ করতে অনুপ্রাণিত হবেন।’  মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সকলকে যার যার অবস্থান থেকে দেশের জন্য কাজ করার আহ্বান জনান এই মার্কিন এটর্নী।

গত সোমবার নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে পালকি পার্টি সেন্টারে ‘বিজয় দিবস’ উপলক্ষে বগুড়া ডিস্ট্রিক্ট এসোসিয়েশন আয়োজিত বিশেষ এক বিজয়-সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন এটর্নী মঈন। হোস্ট সংগঠনের সভাপতি রোকনুজ্জামান নয়নের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মহব্বত আলী আকন্দের পরিচালনায় এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও বক্তব্য রাখেন মধ্যে নর্থ বেঙ্গল ফাউন্ডেশন ইন্ক এর প্রেসিডেন্ট আতোয়ারুল আলম, কাজী জামান, সমাজকর্মী ও নিউইয়র্ক ইন্স্যুরেন্সের প্রেসিডেন্ট শাহ নেওয়াজ, জেবিবিএ এবং যুক্তরাষ্ট্রস্থ সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের নেতা সোলায়মান আলী ও ফাহাদ সোলায়মান।

বিশিষ্টজনদের মধ্যে অনুষ্ঠানে আরো ছিলেন রাফেল তালুকদার, সাইফুর রহমান ভান্ডারী (রাজু), মো. হেলাল উদ্দিন, আজিজুল হক (মুন্না), শাহ্ আফজাল হোসেন, আব্দুর রউফ সরকার (রুবেল), কাজী আজাদ রহমান (সেলিম), তরিকুল হাসান মহব্বত, মো. নজরুল ইসলাম, বিলকিস বানু, শফিক দেওয়ান, শান্ত চৌধুরী, মেজর (অব.) সাজেদুল ইসলাম খান, মো: সোহোন, আব্দুল হামিদ বাদশা, আব্দুল মতিন তালুকদার, রাইসুল হক, জাহিদ হেলালী আলম, আব্দুল মান্নান, কায়সুল ইসলাম, হামিদুল হক চৌধুরী, সাইফুল ইসলাম। সমাবেশের শেষ পর্বে বিশিষ্ট শিল্পীরা সঙ্গীত পরিবেশন করেন। 


বিডি-প্রতিদিন/০৪ জানুয়ারি, ২০১৮/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow