Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৮ মে, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৭ মে, ২০১৮ ২৩:১৩
চ্যালেঞ্জ এবার আফগানিস্তান
ক্রীড়া প্রতিবেদক
চ্যালেঞ্জ এবার আফগানিস্তান

সামনের মাসেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর বাংলাদেশের। দেড় মাসের দীর্ঘ সিরিজ। তবে আপাতত ক্যারিবীয়দের বিরুদ্ধে সিরিজে খুব বেশি একটা মাথা ঘামাচ্ছেন না টাইগাররা। ক্রিকেটারদের দৃষ্টি জুড়ে এখন আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ। চ্যালেঞ্জ এখন আফগানিস্তান।

জুনের প্রথম সপ্তাহে ভারতের দেরাদুনে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজটি। ‘ছোট’ দল হলেও আফগানিস্তান ভয়ঙ্কর। তা ছাড়া রশিদ খান, মোহাম্মদ নবীদের মতো বিশ্বমানের ক্রিকেটাররা যে দলের হয়ে খেলেছেন সেই দলকে ছোট বলার উপায় নেই। র‌্যাঙ্কিংয়েও তো এই আফগানিস্তান বাংলাদেশের উপরে। বাংলাদেশ এখন টি-২০ র‌্যাঙ্কিংয়ে দশে, আর আফগানিস্তান রয়েছে আটে। তাই এই সিরিজটি চ্যালেঞ্জিং হবে বলে মনে করেন বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। গতকাল তিনি বলেন, ‘ব্যাটসম্যানদের দায়িত্ব থাকবে যেন আমরা ভালো করে পারফর্ম করতে পারি এবং বোলারদের ভালো একটি ফিডব্যাক দিতে পারি। কারণ আমরা জানি ওদের বোলিংয়ে ভালো ভ্যারাইটি আছে। আমার মনে হয় একটা চ্যালেঞ্জিং সিরিজ হবে আমাদের জন্য।’

বাংলাদেশ টেস্ট ও ওয়ানডে ক্রিকেটে যতটা উন্নতি করেছে ততটা ভালো করতে পারেনি টি-২০তে। তবে টাইগারদের অনুপ্রেরণা হতে পারে নিদাহাস ট্রফি। লঙ্কানদের মাটিতে দুর্দান্ত দাপট দেখিয়েছেন টাইগাররা। স্বাগতিকদের বিদায় করে দিয়ে দাপটের সঙ্গে ফাইনালে উঠেছিল। এই সিরিজ নিয়েও ভালো ফলই আশা করছেন মাহমুদুল্লাহ, ‘আমাদের ব্যাটিং ডেপথটা যেহেতু ভালো তাই এটার ওপর বেশি জোর দিতে হবে। আর আমাদের বোলিং বিভাগও ভালো করছে। সাকিব আছে, অপু আছে, মিরাজ আছে; আমাদের বোলিংয়েও ভ্যারাইটি আছে। যদি বোলিং স্ট্রেংথের কথা বলেন, ওদের স্ট্রেংথ আমাদের স্ট্রেংথ ভিন্ন। ওইটা নিয়ে বরঞ্চ মাথা না ঘামিয়ে আমরা আমাদের স্ট্রেংথগুলোর দিকে ফোকাস করে যেন যেভাবে নিদাহাস ট্রফিতে ক্যালকুলেটিভ রিস্ক নিয়ে খেলেছি সেই  জিনিসগুলো যদি অ্যাপ্লাই করতে পারি তাহলে ইতিবাচক ফলাফল আশা করতে পারি।’

ঘরোয়া টি-২০তে মাত করে দিচ্ছেন আফগান স্পিনার রশিদ খান। আইপিএলে দারুণ দাপট দেখাচ্ছেন তিনি। আরেক বোলার মুজিব দারুণ ফর্মে আছেন। তবে তাদের নিয়ে সতর্ক বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ বলেন, ‘আমরা তাদের ভিডিও ফুটেজ দেখেছি। যদিও আমি মুজিবকে এখনো ফেস করিনি। রশিদ খানকে খেলা হয়েছে। তবে ওদের বোলিং অ্যাটাকের যে ভ্যারাইটিটা আছে আমাদের ব্যাটিং ডেপথের ওই ক্যাপাবিলিটি আছে যে ওদের বোলারদের ফেস করা এবং রাইট ওয়েতে নিজেরদের অ্যাপ্লাই করা। চ্যালেঞ্জিং একটা সিরিজ হবে।’

টি-২০তে ছোট-বড় দল বলে কিছু নেই। নির্দিষ্ট দিনে যারা ভালো খেলবে তারাই ম্যাচ জিতবে। মাহমুদুল্লাহ বলেন, ‘বলার অপেক্ষা রাখে না আমাদের ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে আফগানিস্তান, ভারত কিংবা অস্ট্রেলিয়া যে কারও সঙ্গেই খেলি না কেন। এই ছোট ফর্মেটে যেহেতু কামব্যাক করার সুযোগ খুবই কম শুরুটা আমাদের ভালো করতে হবে। প্রতিটি সেক্টরে আমাদের ভালো করতে হবে।’

এই পাতার আরো খবর
up-arrow