Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৪ জুন, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৩ জুন, ২০১৮ ২৩:১৪
উদ্বোধনী ম্যাচ আজ
শুরুতে জয় চায় সৌদি আরব
ক্রীড়া প্রতিবেদক
শুরুতে জয় চায় সৌদি আরব

‘মরু দেশ’ সৌদি আরব। ধর্মীয় দিক থেকে বিশ্বের যে কোনো দেশের তুলনায় অনেক বেশি প্রভাবশালী দেশটি এবার পঞ্চমবারের মতো বিশ্বকাপ খেলছে। খেলছে ১২ বছর পর। এক যুগ পর দেশটি আবার ফুটবল মহাযজ্ঞের উদ্বোধনী দিনেই নামছে। প্রতিপক্ষ স্বাগতিক রাশিয়া।

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম বৃহৎ দেশটি ফিফার সদস্য হয় ১৯৫৬ সালে। কিন্তু ১৯৭৪ সাল পর্যন্ত বিশ্বকাপ ফুটবলের বাছাইপর্বে অংশ নেয়নি রাজশাসিত দেশটি। ১৯৭৮ সালে প্রথম অংশ নেয় এশিয়ান অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে। ১৯৯০ সাল পর্যন্ত বাছাইপর্বের ব্যারিয়ার টপকাতে পারেনি। অবশেষে স্বপ্নের বাস্তবায়ন হয় ১৯৯৪ সালে আমেরিকা বিশ্বকাপে। প্রথমবারের মতো খেলার সুযোগ পেয়েই বাজিমাত করে ‘সবুজ ঈগল’ নামে পরিচিত সৌদি আরব। দেশটির মরুভূমিতে হরহামেশা দেখা যায় এই ‘সবুজ’ ঈগল। আরবীয় লোকদের প্রিয় খেলা শিকার। ‘সবুজ’ ঈগল দিয়ে শিকার করতে পছন্দ করে বলে দেশটির প্রিয় পাখি ঈগল। সৌদি আরব এবার বিশ্বকাপে খেলবে ‘এ’ গ্রুপে। স্বাগতিক রাশিয়া ছাড়াও গ্রুপের বাকি দুই দল দুবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন উরুগুয়ে এবং মোহাম্মদ সালাহ’র দেশ মিসর। আজ রাশিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় নামছে জুয়ান অ্যান্তোনিও পিজ্জি।

ফুটবল বিশ্বে কোচদের সবচেয়ে উত্তপ্ত চেয়ার হচ্ছে সৌদি আরবের। গত ৩০ বছরে দেশটিকে কোচিং করিয়েছেন ৫০ জন কোচ। সংখ্যাই বলছে বাদশাহ শাসিত দেশটিতে কতটা অসহায় কোচিং পেশাটা। পিজ্জি ফুটবল বিশ্বের অন্যতম সফল কোচ। চিলিকে কোপা আমেরিকা কাপ জেতানো কোচ নভেম্বরে দায়িত্ব নিয়েছেন সৌদি আরবের। তিনি অবশ্য হঠাৎ করেই দায়িত্ব নিয়েছেন মরু দেশটির। বার্ট ফর মারউইকের কোচিংয়ে ১২ বছর পর বিশ্বকাপে সুযোগ করে নেয় দেশটি। বিশ্বকাপ নিশ্চিত করার পরের দিন অজ্ঞাত কারণে দায়িত্ব ছেড়ে দেন মারউইক। এরপর দায়িত্ব নেন আর্জেন্টিনার এডুয়ার্ডো বাওসা। কিন্তু তিনিও টিকে থাকেননি। এখন দায়িত্বে পিজ্জি। বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারের পিজ্জি কতটা সাফল্য পাবেন, সেটা ভবিষ্যৎ বলবে। তবে তিনি আশাবাদী দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার, ‘দলটি তরুণ ফুটবলারদের নিয়ে গড়া। আমাদের গ্রুপটি শক্তিশালী। তারপরও আশাবাদী।’

দলটির মূল ভরসার নাম ফাহাদ আল মুয়াল্লাদ। বার্সেলোনার একাডেমিতে সুযোগ পেয়েও দেশ ছাড়েননি মুয়াল্লাদ। দেশের জনপ্রিয় ক্লাব আল ইত্তিহাদের যুব ফুটবল উন্নয়ন কর্মসূচিতে যোগ দেন এবং মাত্র ১৬ বছর বয়সে জায়গা করে নেন ইত্তিহাদের মূল দলে। এখন দেশের মূল ভরসা তিনি। পিজ্জির সৌদি আরব বিশ্বকাপে খেলবে কাউন্টার অ্যাটাক নির্ভর ফুটবল। অবশ্য দলটিতে স্কোরারের অভাব রয়েছে। যা মূল মঞ্চের প্রতিটি ম্যাচেই ভোগাবে বলছেন বিশ্লেষকরা। উদ্বোধনী ম্যাচের পর সৌদি আরবের দ্বিতীয় ম্যাচ ২০ জুন উরুগুয়ে এবং ২৫ জুন সৌদি আরবের বিপক্ষে।                      

এই পাতার আরো খবর
up-arrow