Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৪ জুন, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ১৪ জুন, ২০১৮ ০১:৫২
আসলামের কলাম
চার চ্যাম্পিয়নকেই এগিয়ে রাখব
চার চ্যাম্পিয়নকেই এগিয়ে রাখব

এবার বিশ্বকাপে চার চ্যাম্পিয়নকে এগিয়ে রাখব। কেননা ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, জার্মানি ও ফ্রান্সের তারকা খেলোয়াড়ের অভাব নেই। গতিময় ফুটবল খেলে এরা। এই জন্য যে কোনো বিশ্বকাপের চেয়ে এবারটা হবে খুবই গতিময়। এদের সঙ্গে পাল্লা দিতে হলে প্রতিপক্ষদের গতি নিয়ে খেলতে হবে। ধীরে চলার কোনো স্কপ নেই। ব্রাজিলের নেইমারের ইনজুরি নিয়ে অনেকে শঙ্কায় ছিলেন। আমি বলবো এই ইনজুরি নেইমার ও ব্রাজিলের প্লাস পয়েন্ট হয়ে দাঁড়িয়েছে। কেননা ইনজুরি থাকায় দীর্ঘ সময়ে বিশ্রামে ছিলেন নেইমার। অন্যরা লিগ খেলে ক্লান্ত থাকলেও নির্ভার হয়ে খেলতে পারবেন নেইমার।

আর্জেন্টিনা দুবারের চ্যাম্পিয়ন হলেও গোটা বিশ্বে তাদেরই সমর্থক সংখ্যা বেশি। বাংলাদেশের কি যে অবস্থা তা নিশ্চয় বুঝিয়ে বলার দরকার নেই। গতবারও তারা ফাইনাল খেলেছিল। দুর্ভাগ্যক্রমে মেসির হাতে কাপ উঠেনি। এবার কিন্তু ৩২ বছর পর বিশ্বজয়ের উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে আর্জেন্টিনার। তবে একটা কথা না বললেই নয়, দলকে খেলাতে হবে মেসি রূপেই। মেসি বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। মাঠে ম্যাজিক দেখাতে তার জুড়ি নেই। তাই মেসিকে প্রতিপক্ষরা কড়া মার্কিংয়ে রাখবে। একাধিক ফাউলের শিকার হবেন। এক্ষেত্রে সতীর্থদের মেসির কাজটা করতে হবে। মেসি যত বড় মানের খেলোয়াড় হোক না কেন ওর একার পক্ষে তো কাপ জয় করা সম্ভব নয় বাকিদেরও জ্বলে উঠতে হবে।

আসা যাক জার্মানি ও ফ্রান্স প্রসঙ্গে। দুই দেশই গতিময় খেলা খেলে। প্রতিটি পজিশনেই তাদের নির্ভরযোগ্য খেলোয়াড় রয়েছে। অনেকে প্রস্তুতি ম্যাচে অস্ট্রিয়ার কাছে হারাতে জার্মানদের খাটো করে দেখতে শুরু করেছে। আমি কিন্তু বলব জার্মানির হারটা তাদের লাভই হয়েছে। কেননা বিশ্বকাপের আগে কোচ লো দলের দুর্বলতা চিহ্নিত করতে পেরেছে। জার্মানি ও ফ্রান্সের বড় প্লাস পয়েন্ট হচ্ছে তারা ঠাণ্ডা মাথায় খেলে, দলে ডিসিপ্লিন রয়েছে। দুই দলে যে মানের খেলোয়াড় আছে তাতে যে কেউ বিশ্বকাপ জিততে পারে। চার দলের বাইরে বেলজিয়াম ও পর্তুগালের সম্ভাবনাও দেখছেন অনেকে। দুটো দেশই শক্তিশালী। বেলজিয়ামে হ্যার্জাড ও পর্তুগালে রোনালদোর মতো বিশ্বসেরা তারকা আছেন। এই দুজনকে নিয়ে তো আর বিশ্বকাপ জেতা সম্ভব নয়। তবে এবার বিশ্বকাপ আলো ছড়াতে পারেন হ্যারিকেইন। ইংলিশ এই তারকার স্পিড ও স্কিল দুটোই রয়েছে। মিসরের সালাহও নজর কাড়তে পারেন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow