Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৭ মে, ২০১৮ ১০:১০ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৭ মে, ২০১৮ ১৪:৩৪
টাইগারদের পরামর্শ দিয়ে গেলেন সেই গর্ডন গ্রিনিজ
অনলাইন ডেস্ক
টাইগারদের পরামর্শ দিয়ে গেলেন সেই গর্ডন গ্রিনিজ
সংগৃহীত ছবি

বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক কোচ গর্ডন গ্রিনিজ নামটা টাইগারদের ক্রিকেটের সঙ্গে ওতোপ্রতোভাবে জড়িত। কেননা ১৯৯৭ সালে লাল-সবুজের দলের আইসিসি ট্রফি’র সাফল্যের কারিগর এই ক্যারিবিয়ান কোচ।

এছাড়া ১৯৯৯ সালে যুক্তরাজ্যে প্রথমবার বিশ্বকাপ খেলতে গিয়ে গর্ডন গ্রিনিজের কোচিংয়েই পাকিস্তানের চরম শক্তিশালী দলকে হারিয়ে বিশ্বকে চমকে দেন আমিনুল, সুজন, আকরাম, নান্নু, দুর্জয়, পাইলট, অপি, রফিকরা।

বাংলাদেশের ক্রিকেটের মোড় ঘোরার সময়কার কোচ গর্ডন গ্রিনিজকে নাটকীয়ভাবে বিদায় নিতে হলেও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) আমন্ত্রণে ঢাকায় এসে বর্তমান দলের খেলোয়াড়দের দিয়ে গেলেন পরামর্শ।

গর্ডন গ্রিনিজ যখন বাংলাদেশের কোচ ছিলেন তখন মিরপুর স্টেডিয়ামে ক্রিকেট হতো না। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ফুটবলের সঙ্গে মাঠ ভাগাভাগি করতে হত ক্রিকেটকে। এখন ক্রিকেটের আছে নিজস্ব মাঠ। যে মাঠেই বিসিবির অফিস। এই ‘হোম অব ক্রিকেট’ ঘিরেই বাংলাদেশের ক্রিকেটের সব কার্যক্রম। যে ঠিকানায় বুধবার বিকেলে কয়েক পাক ঘুরেও গেলেন ক্রিকেট ইতিহাসেরই অন্যতম সেরা এ ওপেনার।

এর আগে, সোমবার গর্ডন গ্রিনিজকে দেওয়া বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সেকালের ক্রিকেটারদের অনেকেই। যেখানে মুশফিকুর রহিমসহ মাত্র কয়েকজনই ছিলেন একালের ক্রিকেটার। 

বুধবার মিরপুরের ‘হোম অব ক্রিকেট’ পরিদর্শনে গিয়ে এই ক্যারিবীয় গ্রেট দেখা পেয়ে গেলেন বর্তমান জাতীয় দলের সবারই। বিকেল ৩টা থেকে অনুশীলন সূচি ছিল ক্রিকেটারদের। গ্রিনিজ মিরপুরে এলেন এর কাছাকাছি সময়ের মধ্যেই। এসেই ভাসলেন নানা উপহারের বন্যায়। ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা সই সংবলিত বাংলাদেশ দলের জার্সি তুলে দিলেন গ্রিনিজের হাতে, মুশফিক দিলেন ক্যাপ। মাহমুদ উল্লাহ জানালেন ফুলেল শুভেচ্ছা। 

একাডেমি মাঠে তার সামনে গোল হয়ে দাঁড়ানো অনুশীলন শিবিরের ক্রিকেটারদের সঙ্গে কিছুক্ষণ কথাও বললেন গ্রিনিজ। জানতে চাইলেন পরবর্তী সিরিজগুলো সম্পর্কে। পরে সবাইকে সব সময় তৈরি থাকাসহ ব্যাটসম্যানদের দিলেন নিজেদের উইকেটের মূল্য বোঝার পরামর্শও। প্রায় দুই যুগ আগে আকরাম খান-আমিনুল ইসলাম-মিনহাজুল আবেদীনরাও নিশ্চয়ই গ্রিনিজের মুখ থেকে এমন কথাই শুনতেন।

বিডি প্রতিদিন/১৭ মে ২০১৮/এনায়েত করিম

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow